রসুই বাংলাদেশ-একটি স্বপ্নের বীজ ও তা বিকাশের নেপথ্যে ই-ক্যাবের ভূমিকাঃ

বাংলাদেশের অনলাইন ব্যবসায়ীদের একমাত্র বৃহৎ ব্যবসায়িক ফোরাম, ই-কমার্স এসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ (ই-ক্যাব) ১০০০ সদস্যদের নিয়ে উৎযাপন করতে চলেছে তার পঞ্চমবর্ষপূর্তি। যদিও আমি এই সংগঠনের খুব পুরোনো সদস্য নই, তবুও এই পথ পাড়ি দিতে এতগুলো মানুষের এই অক্লান্ত পরিশ্রমকে আমার অকুন্ঠ সম্মান জানাতে আজ কাঁচাপাকা কিছু শব্দের প্রকাশ। আমি যেহেতু সামান্য একজন উদ্যেক্তা কোন উঁচু দরের কোন লেখক নই আশা করি মনের অজান্তে আমার অপরিপক্ক কোন শব্দ প্রয়োগকে স্বীয় উদার মনের পরিচয়ে ক্ষমা সুন্দর দৃষ্টিতে দেখবেন।
প্রথমেই রসুই ও ই-ক্যাবের সম্পর্ক উল্লেখ করি। রসুই বাংলাদেশ যখন তার ব্যবসায়িক পরিকল্পনা ও প্রয়োগিক বিভিন্ন পন্থা নিয়ে কাজ করছিল তখন আমার কাছে সবচাইতে গুরুত্বপূর্ণ ও কঠিন কাজ মনে হয়েছিল পরিকল্পনার পদক্রম। কোন কাজটা কখন প্রয়োজন, কেন প্রয়োজন, কতটুকু প্রয়োজন এবং নিদির্ষ্ট কাজে কি ধরনের চ্যালেঞ্জ আসতে পারে ও তা মোকাবেলার কি কি পদক্ষেপ হতে পারে? এ ধরনের নানান বিষয় যখন সবাই ব্যতিব্যস্ত তখন আবার বাজারের একশ্রেনীর ভাল শুভাকাঙ্খীর উদয় হল, যারা আসলে সহযোগিতার নামে নিজ নিজ সেবা বা পণ্য গঁচিয়ে দিতে প্রস্তুত। এ শ্রেনী আসলে আপনার উপকারের কথা বলে আপনাকে ব্যবহার করে যাবে, এবং ব্যবহার শেষে আপনাকে টিস্যু পেপারের মত ছুঁড়ে ফেলবে।
এমন তেমন করতে প্রায় ১টা বছর অতিবাহিত হল, কাজের অগ্রগতিও তেমন সন্তোষজনক পর্যায়ে ছিল না। এরই মাঝে আমার এলাকার বড় ভাই Imaxq International এর কর্ণাধার মোরশেদ আলম দিলেন ই-ক্যাবের সন্ধান।

যেহেতু আমাদের কার্যক্রম চট্টগ্রাম কেন্দ্রিক তাই ই-ক্যাবে যোগাযোগের পরই IDYLL TRADE LINK কর্ণাধার ও ই-ক্যাবের প্রতিষ্ঠাকালীন সদস্যদের একজন লোকমান হাকিম ভাইয়ের সাথ পরিচয়ের সূত্রপাত। আমার মনে আছে যখন লোকমান ভাই আমাদের অফিস পরিদর্শনে আসেন খুব বৃষ্টি ছিল, আমি ভেবেছিলাম বৃষ্টিতে হয়ত নাও আসতে পারেন। কিন্তু আমার ধারনাকে ভূল প্রমানিত করে তিনি প্রচন্ড বর্ষাতে এসে আমাদের অফিস ও যাবতীয় নথি দেখে যান। তাকে প্রচন্ড চাপাচাপির পর ও এক কাপ চা খাওয়াতে পারিনি।
আমার এই ক্ষুদ্র জীবনে প্রকৃত সাহায্যকারী মানুষ খুবই কম দেখেছি। লোকমান ভাই তেমনি একজন মানুষ, যিনি অপরকে সম্মান দিতে জানেন উপকারের ইচ্ছে রাখেন।
যাই হোক, প্রসংঙ্গে আসি- এরপরই ই-ক্যাবের বিভিন্ন ছোট বড় প্রশিক্ষনে অংশগ্রহনের সুযোগ পাই, এবং এই সব প্রশিক্ষনের মাধ্যমে ধীরে ধীরে খুজে নেই আমার উত্তরগুলো, রুবিক কিউবের পাজলগুলো ধীরে ধীরে সহজ মনে হতে থাকে।
আমি ই-ক্যাবের সামান্য একজন সদস্য, তারপরও এপর্যন্ত যার কাছে যতটুকু সহযোগিতা চেয়েছি, তা দিতে কেউ কাপর্ণ প্রকাশ করেন নি। আমি ই-ক্যাবের সার্বিক সফলতা কামনা করছি। আগামী দিনগুলোতে ও ই-ক্যাবে এভাবেই উদ্যেক্তাদের সহযোগিতা প্রদান করবে কামনা করছি।


0 Comments

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

en_USEnglish